Selfie Points ভারতীয় রেলওয়ে প্রধানমন্ত্রী মোদী সেলফি পয়েন্টের জন্য 1.62 কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে

Selfie Points ভারতীয় রেলওয়ে প্রধানমন্ত্রী মোদী সেলফি পয়েন্টের জন্য 1.62 কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে

Indian Railways to spend Rs 1.62 crore on selfie points featuring PM Modi at stations একটি অনন্য এবং কিছুটা বিতর্কিত পদক্ষেপে, ভারতীয় রেলওয়ে সারা দেশের বিভিন্ন রেলস্টেশনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ছবি সমন্বিত Selfie Points সেলফি পয়েন্ট স্থাপনের জন্য উল্লেখযোগ্য পরিমাণ 1.62 কোটি টাকা বরাদ্দ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই উদ্যোগের লক্ষ্য হল প্রধানমন্ত্রীর ভার্চুয়াল উপস্থিতি সহ স্মরণীয় মুহূর্তগুলিকে ক্যাপচার করার অনুমতি দেওয়া, তবে এটি রাজনৈতিক বিরোধীদের, বিশেষ করে কংগ্রেস দলের সমালোচনার জন্ম দিয়েছে। মল্লিকার্জুন খড়গে, একজন বিশিষ্ট কংগ্রেস নেতা, ব্যয়টিকে “অর্থের নির্লজ্জ অপচয়” হিসাবে চিহ্নিত করেছেন, যা এই জাতীয় উদ্যোগের জন্য সংস্থান বরাদ্দকে ঘিরে চলমান বিতর্কে ইন্ধন যোগ করেছে।

সেলফি পয়েন্ট Selfie Points:

Selfie Points সেলফি পয়েন্টগুলি রেলওয়ে স্টেশনগুলিতে একটি বিশিষ্ট বৈশিষ্ট্য হয়ে উঠতে সেট করা হয়েছে, যা যাত্রী এবং দর্শনার্থীদের প্রধানমন্ত্রী মোদীর ছবিগুলির সাথে সেলফি তোলার সুযোগ দেয়৷ এই পদক্ষেপকে জনগণের সাথে সংযোগ স্থাপন এবং রাজনৈতিক নেতৃত্বের সাথে সম্পৃক্ততার অনুভূতি তৈরি করার প্রচেষ্টা হিসাবে দেখা হচ্ছে।

Selfie Points Picture

প্রদর্শনে কেন্দ্রীয় উদ্যোগ :

সেলফি পয়েন্টগুলি কেবল ব্যক্তিগত মুহূর্তগুলি ক্যাপচার করার জন্য নয়; তারা মূল কেন্দ্রীয় উদ্যোগের প্রচার এবং হাইলাইট করার দ্বৈত উদ্দেশ্যও পরিবেশন করে। স্কিল ইন্ডিয়া, উজ্জ্বলা যোজনা, স্টার্টআপ ইন্ডিয়া এবং চন্দ্রযান মিশনের মতো গুরুত্বপূর্ণ সরকারি কর্মসূচির পটভূমিতে প্রধানমন্ত্রী মোদির ছবি কৌশলগতভাবে স্থাপন করা হবে। এই পদক্ষেপটি সরকারের নীতি এবং নাগরিকদের দৈনন্দিন জীবনের মধ্যে সংযোগকে শক্তিশালী করার উদ্দেশ্যে করা হয়েছে।

রাজনৈতিক বিতর্ক :

ভারতীয় রেলওয়ে এই উদ্যোগটিকে জনসাধারণের সাথে সংযোগ করার একটি সৃজনশীল এবং আকর্ষক উপায় হিসাবে দেখে, এটি রাজনৈতিক অঙ্গনে বিতর্কের একটি বিন্দু হয়ে উঠেছে। মল্লিকার্জুন খার্গের নেতৃত্বে কংগ্রেস পার্টি 1.62 কোটি রুপি বরাদ্দের তীব্র সমালোচনা করেছে যা তারা একটি অপ্রয়োজনীয় এবং অতিরিক্ত ব্যয় বলে মনে করেছে। খড়গে এটিকে “অর্থের নির্লজ্জ অপচয়” বলে অভিহিত করেছেন এবং সরকারের অগ্রাধিকারগুলি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন, বিশেষ করে চাপের সমস্যা এবং অর্থনৈতিক চ্যালেঞ্জের মুখে।

উদ্যোগের সমর্থকরা যুক্তি দেয় যে এটি সরকারের অর্জন এবং উদ্যোগগুলিকে প্রদর্শন করার জন্য একটি ইতিবাচক প্ল্যাটফর্ম হিসাবে কাজ করে, জনসাধারণের মধ্যে জাতীয় গর্ব এবং সচেতনতার বোধ জাগিয়ে তোলে। তারা দাবি করে যে এই ধরনের ইন্টারেক্টিভ ডিসপ্লেগুলি কার্যকরভাবে সরকারের নীতি এবং প্রোগ্রামগুলিকে বৃহত্তর দর্শকদের কাছে পৌঁছে দিতে পারে।

Selfie Points Picture

WhatsApp Channel Join Now
Telegram Group Join Now

ভারতীয় রেলওয়ের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বৈশিষ্ট্যযুক্ত সেলফি পয়েন্টগুলিতে 1.62 কোটি টাকা ব্যয় করার সিদ্ধান্ত রাজনৈতিক আগুনের ঝড় তুলেছে, সমর্থকরা এই পদক্ষেপের সৃজনশীলতার প্রশংসা করেছেন এবং সমালোচকরা এটিকে জনসাধারণের তহবিলের অপব্যবহার হিসাবে নিন্দা করেছেন। বিতর্কের সূত্রপাত হওয়ার সাথে সাথে, এটি সরকারী উদ্যোগের কার্যকর যোগাযোগের প্রয়োজনীয়তা এবং ন্যায়সঙ্গতভাবে সম্পদ বরাদ্দ করার দায়িত্বের মধ্যে বিস্তৃত উত্তেজনাকে তুলে ধরে। শেষ পর্যন্ত, এই উদ্যোগের সাফল্য সম্ভবত নির্ভর করবে এটি জনসাধারণের সাথে কতটা ভালভাবে অনুরণিত হয় এবং এটি ব্যস্ততা এবং আর্থিক দায়িত্বের মধ্যে ভারসাম্য বজায় রাখতে পারে কিনা।

News Source : https://twitter.com/TimesAlgebraIND/status/1739919304517468571?t=Nl1ZoDQCJ2oP84Vqu4kQ9A&s=19

Leave a Comment

Enable Notifications OK No thanks