দীপাবলির শুভেচ্ছা : ফ্রান্স, জাপান, দক্ষিণ আফ্রিকার নেতারা ভারতে এসেছেন Diwali Greetings 2023

Diwali Greetings: Leaders of France, Japan, South Africa visit India, দীপাবলির শুভেচ্ছা : ফ্রান্স, জাপান, দক্ষিণ আফ্রিকার নেতারা ভারতে এসেছেন 

দীপাবলি, হিন্দু সংস্কৃতির একটি অমূল্যবান উৎসব, যা প্রতি বছর অক্টোবর থেকে নভেম্বর মাসের মধ্যে হিন্দু সম্প্রদায়ের বিভিন্ন অংশে পালিত হয়। এই উৎসবের অবসানে, সারা বিশ্ব ভরে দীপাবলির শুভেচ্ছা জানানো হয়। এই বছরও ফ্রান্স, জাপান, দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে নেতারা এসে ভারতে উদ্যোগ নিয়েছেন, অভিনন্দন ও শুভকামনা জানাতে।

ফ্রান্স : ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রী এবং অন্যান্য প্রধান নেতা দীপাবলি শুভেচ্ছা জানানোর জন্য ভারতে আসছেন। ফ্রান্সি রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রী হেমান্ড ম্যাক্রোন সহ সর্বাধিকারী কর্তৃপক্ষ বিশেষভাবে দীপাবলির অবসরে ভারতীয় বাঁধন বৃদ্ধির শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন। ফ্রান্সি রাষ্ট্রপতি ম্যাক্রোন বলেছেন, “আমি আশা করি যে এই পাবলিক উৎসবের সময়ে আপনি এবং আপনার পরিবার সুখ, সান্ত্বনা এবং অভ্র অভাবে ঘিরে থাকবেন। ফ্রান্স এবং ভারতের সম্পর্কের অগ্রগতি এবং মুক্তিযুদ্ধে আমাদের সহযোগিতা এবং একসাথে কাজ করার জন্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি।”

জাপান : জাপান থেকেও এসে অভিনন্দন ও শুভকামনা জানানো হয়েছে। জাপানি প্রধানমন্ত্রী ইয়োসেহিডে শুগা, জাপানের একটি প্রভাবশালী নেতা, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দীপাবলির শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন। তারা একসাথে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাধ্যমে সাংস্কৃতিক আত্মবিশ্বাস ও বৈচিত্র্যের মাধ্যমে ভারত এবং জাপান সম্পর্ক আরও বৃদ্ধি করতে ইচ্ছুক।

Diwali Greetings 2023

দক্ষিণ আফ্রিকা : দক্ষিণ আফ্রিকা এবং ভারতের মধ্যে বাড়ছে বৃহত্তর দিকের সাক্ষরিক যোগাযোগ। এই বৃদ্ধির সম্ভাবনা দেখে দক্ষিণ আফ্রিকা রাষ্ট্রপতি ম্যাটামেলা ও প্রধানমন্ত্রী সিরিল রামাফোসা দীপাবলির শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন। ম্যাটামেলা বলেছেন, “আমরা দীপাবলি উৎসব এবং অতিথিত্বের মাধ্যমে দুটি দেশের মধ্যে মিত্রতা এবং সহযোগিতা বাড়াতে প্রস্তুত।”

এই উল্লেখযোগ্য অভিনন্দনের মাধ্যমে, ফ্রান্স, জাপান এবং দক্ষিণ আফ্রিকা দেখাচ্ছে, দীপাবলি একটি আনন্দময় ও আদর্শ সমৃদ্ধির সময়, সমৃদ্ধি এবং সাংস্কৃতিক আত্মবিশ্বাসের অভিজ্ঞান যে সম্প্রদায়ের অংশ। এই শুভকামনা তাদের আপর্যাপ্ত সম্পর্কের প্রতি মানবিক সম্বন্ধ এবং একে অপরের সাংস্কৃতিক ধারার সহজভাবে উপস্থাপন করতে কাজ করতে একজন মাধ্যম হিসেবে পরিণত হতে সহায় করতে পারে।

WhatsApp Channel Join Now
Telegram Group Join Now

দীপাবলির শুভেচ্ছা: বিশ্ববিদ্যালয়ে সুসংস্কৃত মিলন, ভালো রাজনৈতিক সম্পর্কের দিকে ভালোবাসা

দীপাবলি, হিন্দু সংস্কৃতির একটি অবহেলিত জোট, এটি নভেম্বরে প্রতি বছর অক্টোবর থেকে শুরু হয় এবং বিভিন্ন ধর্মীয় এবং সাংস্কৃতিক প্রস্তুতির জন্য একটি উৎসব হিসেবে প্রশিক্ষিত হয়। এই মৌলিক অনুষ্ঠানের আলোকে, বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নেতা এবং দূতবাড়িদের দিকে ভালোবাসা ও শুভেচ্ছা পৌঁছাতে দেখা গিয়েছে। ফ্রান্স, জাপান, দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে এসে এই অভিনন্দনের সামর্থ্যের মাধ্যমে ভালো রাজনৈতিক সম্পর্কের পথে একটি নতুন দিকে পথপ্রদর্শন হয়েছে।

ফ্রান্স : ফ্রান্স হলো একটি শক্তিশালী রাষ্ট্র, এবং তার নেতারা দীপাবলির অবসরে ভারতবর্ষে আসছেন এবং তাদের অভিজ্ঞান শেয়ার করতে উৎসাহিত হচ্ছে। ফ্রান্সি রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রী হেমান্ড ম্যাক্রোন দ্বারা দীপাবলির উপলক্ষে ভারতীয় লোকজনের কাছে একটি উত্তরণ প্রেরণা প্রদান হচ্ছে। এর মাধ্যমে, তারা ভারত ও ফ্রান্স মধ্যে বিভিন্ন ক্ষেত্রে সহযোগিতা এবং সমঝোতা স্থাপনে অগ্রগতি করতে ইচ্ছুক।

জাপান : জাপান হলো একটি উন্নত ও উদার সমাজ, এবং তার প্রধানমন্ত্রী ইয়োসেহিডে শুগা দ্বারা দীপাবলির উপলক্ষে নেতৃত্বের জন্য ভারত ও জাপান মধ্যে বৃহত্তর সম্পর্কের আগ্রহ প্রকাশ করা হয়েছে। তারা একসাথে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাধ্যমে সাংস্কৃতিক আত্মবিশ্বাস ও বৈচিত্র্যের মাধ্যমে ভারত এবং জাপান সম্পর্ক আরও বৃদ্ধি করতে ইচ্ছুক।

দক্ষিণ আফ্রিকা : দক্ষিণ আফ্রিকা এবং ভারত এর মধ্যে বাড়ছে বৃহত্তর দিকের সাক্ষরিক যোগাযোগ, এবং এই বৃদ্ধির সম্ভাবনা দেখে দক্ষিণ আফ্রিকা রাষ্ট্রপতি ম্যাটামেলা ও প্রধানমন্ত্রী সিরিল রামাফোসা দীপাবলির উপলক্ষে ভারতের প্রতি তাদের মিত্রতা ও অভিমান প্রকাশ করেছেন। ম্যাটামেলা বলেছেন, “আমরা দীপাবলি উৎসব এবং অতিথিত্বের মাধ্যমে দুটি দেশের মধ্যে মিত্রতা এবং সহযোগিতা বাড়াতে প্রস্তুত।”

এই উল্লেখযোগ্য শুভেচ্ছার মাধ্যমে ফ্রান্স, জাপান এবং দক্ষিণ আফ্রিকা দেখাচ্ছে, ভালো সম্পর্ক এবং অভিজ্ঞানের সমৃদ্ধির জন্য দীপাবলি একটি আদর্শ মৌলিক পর্ব। এই শুভকামনা তাদের সম্পর্কের প্রতি একজন মাধ্যম হিসেবে পরিণত হতে সহায় করতে পারে, এবং সৃষ্টিতে সহযোগিতা এবং সহবাসের মাধ্যমে একে অপরকে বৃদ্ধি করতে সাহায্য করতে পারে।

Leave a Comment

Enable Notifications OK No thanks